Shahmik Jahan Shuprova

September 17, 2021 1 By JAR BOOK

কবি ও লেখক পরিচিতি

Shahmik Jahan Shuprova

Student

Dhaka

বৃষ্টি ভেজা রাত

হঠাৎ চোখে আলো লাগলো, তারপর জোরালো শব্দে ঘুমটা ভেঙে গেল।উঠে মোবাইলে দেখি রাত ২টা বাজে, বিছানার পাশেই জানালা ।জানালা খুললাম, এক মুহর্তের জন্য আবার চারদিক আলোকিত হলো, সেই আলোতে দেখতে পেলাম বাইরের গাছের পাতা গুলো ভেজা।বুঝতে পারলাম বৃষ্টি পড়ছে, সেই সাথে বাজও পড়ছে।সাধারণত বৃষ্টি দেখলে খুশি হই আমি, কারণ বৃষ্টিতে ভিজতে ভালো লাগে, কিন্তু এখন বৃষ্টি দেখেই মনটা খুব খারাপ হয়ে গেলো, চুপ করে বসে বাইরের দিকে তাকিয়ে রইলাম উদাস মনে।তারপর কী ভেবে বিছানা থেকে নেমে হেঁটে বাইরে এলাম, সিড়ি বেয়ে উপরে উঠতে শুরু করলাম।বাইরে প্রচুর বাতাস বইছে। উপরে উঠতে উঠতে ছাদে এসে গেলাম, অন্য দিন হলে লিফটে উঠতাম, আজ সিড়ি দিয়েই উঠলাম।ছাদের দরজা খুলে ছাদে যেতেই বাতাস লাগল গায়ে, বৃষ্টিতে ভিজে গেলাম পুরোপুরি।হঠাৎ মনে পড়ে গেল সেদিনের কথা, সেদিন রাতেও বৃষ্টি হচ্ছিল।ছোট এক মেয়ে তার মাকে সাথে নিয়ে বৃষ্টিতে ভেজার আবদার করল।মা একমাত্র ছোট মেয়ের আবদার রাখতে মেয়েকে নিয়ে ছাদে এলো ভিজতে। আনেক আনন্দ হচ্ছিল মেয়েটার।সেদিন বৃষ্টির সাথে বিদ্যুৎ চমকাচ্ছিল, বাজ পড়ছিল। সেই সময়ে মার গায়ে পড়ল বাজ, প্রাণ হারালো মা। আজ সেই ছাদেই দাঁড়িয়ে আছি আমি, ভাবছি সেই দিনের কথা, সেদিন বৃষ্টিতে ভিজতে না চাইলে হয়ত আজ মা আমার সাথেই থাকত। সেই দিনের ঘটনার জন্য আজ নিজেকে অনেক দোষী মনে হচ্ছে।হঠাৎ দিনের বেলার মতো চারদিক আলোকিত হলো।কী দেখলাম আমি আলোতে? ওখানটায় মা দাঁড়িয়ে আছে। যাচ্ছি এ সময় কে যেন আমাকে ধাক্কা দিয়ে পাশে ফেলে দিল। আর তখনই আমার খুব কাছ দিয়ে বাজ পড়ল।এমন যেন, আমার গায়ে বাজ না পড়ার জন্য আমাকে কেউ ইচ্ছে করে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিল।সবকিছুই এত দ্রুত আর হঠাৎ ঘটল যে, সবকিছু বুঝতে সময় লাগল কিছুক্ষণ। মা, আমি মনে করি আমাকে বাঁচাতে তুমিই এসেছিলে, কারণ আমার আশেপাশে আর কেউ ছিল না, কেউ থাকারও কথা নয়।হ্যাঁ, তুমিই এসেছিলে মা, আমার জীবনে এই দুটি রাত আমি কোনোদিনও ভুলতে পারব না।এক রাতে তুমি আমাকে ছেড়ে চলে গিয়েছিলে আর অন্য রাতে তুমি। আমার কাছে এসেছিল আমাকে রক্ষা করতে।