ছৈয়দা ফারজানা ইয়াছমীন

বাঙালী জাতি

October 25, 2020 0 By jarlimited

ছৈয়দা ফারজানা ইয়াছমীন
Oct 5, 2020

অনবগত তুমি,
হে বাঙালি জাতি
মনুষ্য হয়েছো মাটিতে
চিত্তে হওনি।

চিত্তবিকার ক্ষুদ্র তোমার,
স্বপ্ন তোমার ফিকে,
নেই কোনো অনুসার,
কিয়ৎ টাও রেখে।

মূর্ছিত তুমি,ক্ষীণবল তুমি,
নিগ্রহে তুমি মহা,
হিংসুটে অনল তুমি
নেই তোমার মাঝে কোনো স্পৃহা।

মেরুদণ্ডহীন জাতি তুমি-
ভিতরটা পুরো ফাঁপা,
মনুষ্যত্বের বিনাশ ঘটেছে,
এখানেই নয় রফা।

বৈরীভাবে মগ্ন তুমি,
করেছো নগ্ন যোষিতা,
তুমি ধর্ষক,তুমি মৃতভুমি,
তুমিই আবিলতা।

তুমি ধ্বংস, তুমি চূর্ণিত,
দুমড়ানো, কুঞ্চিত তুমি,
যে অঙনার সম্ভ্রমে স্বাধীনতা অর্জিত,
সে অঙনার কদর করোনি তুমি জন্মভুমি।

ধিক্কার তোমায়

ধিক্কার তোমায়, হে সমাজ-
যে সমাজে নারী নিশ্চুপ,
যাদের কাঁদতে বারণ,
যাদের বলতে বারণ,
বাইরের জগতে তার যাওয়া বারণ,
কোনো কিছুতেই নেই তার মওকুফ।

তুমি কাপুরুষ, তুমি অসাড়,
তুমি ভয় পাও নারীর প্রতিভার,

হে সমাজ তুমি-
নগ্ন প্রাচীন যুগের প্রাণি,
যার মাঝে নেই মনুষ্যত্বের বাণী।
যে সমাজ জানে শাসন ,
জানে শোষণ,
তবু তোমায় করবেনা রাণী।
তুমি রইবে পায়ের তলে,
তুমি সইবে আর ভাসাবে আঁখি তোমার নোনা জলে।

পদ্মনীল

চেয়ে থাকা সেই কাজল চোখ ,
নীলিমার নীলে ভাসা পদ্ম,
স্পর্শে ছুঁয়ে যাওয়া সেই রক্ত ঠোঁট,
লিখে যায় হাজারো গদ্য।

আঙুলের ফাঁকে আঙুল চাপা,
সেতো বুকের বাঁ পাশ কাঁপা,
মুগ্ধতায় কাছে আসা,
সেতো খুলে যাওয়া চুলের খোপা।

হাসি তার চাঁদমুখ,
তারি মাঝে সর্বসুখ,
দেখি তারে চিত্তখানি,
চাইনা পলক পরুক।

স্নিগ্ধতাই শীতল হাওয়া
উষ্ণতায় মগ্ন হওয়া,
রোমাঞ্চকতায় নগ্ন সেই তুমি অন্য,
এই মনুষ্য শুধু তোমারি জন্য।

মাওলা ইয়া মাওলা

সারা জাহানের সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ
আশরাফুল মাখলুকাত,
তোমার প্রার্থনায় হয় যেন বিধি
মোদের মিষ্টি প্রভাত।
শান্তিতে দিবস হাসে, হাসে ঐ রাত।

মাওলা ইয়া মাওলা
তুমি রহম করো দানে,
সারাভুবন তাকিয়ে আছে
বিভু তোমার পানে।

সিন্ধুর মৌজ হাসে খোদা তোমার আদেশে,
মুসলমান আজ ভুলেছে তুমি যে কে!
দুনিয়াবি সব ছলনায় পড়ছে তারা লোভ তাড়নায়,
হাশরের ময়দানে যে তারাও একদিন কাঁদবে।
জাহান্নামের কঠিন শাস্তির গাঙ জলে ভাসবে।

মাওলা ইয়া মাওলা
তুমি রহম করো দানে,
সারাভুবন তাকিয়ে আছে
বিভু তোমার পানে।

এলোকেশী হয়ে চলছে অঙ্গনা
অঙ্গের কি বাহার,
র্পদার ঠিক নাই ঠিকানা
করছে পরোয়া কে কাহার।
হে প্রভু আর কারো জুটেনা আহার।

মাওলা ইয়া মাওলা
তুমি রহম করো দানে,
সারা ভুবন তাকিয়ে আছে
বিভু তোমার পানে।

প্রগাঢ় মনোভাবে মগ্ন
প্রভু তোমার প্রার্থনায়,
উগ্র প্রথায় নগ্ন
ঠকছে মানুষ মিষ্টতায়।
ধ্বংস মানুষ ধৃষ্টতায়।

মাওলা ইয়া মাওলা
তুমি রহম করো দানে,
সারা ভুবন তাকিয়ে আছে
বিভু তোমার পানে।

পুলসিরাত পারে দাও মোরে শক্তি
হে মহান বিশ্বপতি,
উপসংহারে যেন পাই তোমার প্রীতি।
চরিত্র যদি হয় মার্জিত,
খোদা জান্নাতের শেষ দ্বারে হলেও করিও সুশোভিত।

মাওলা ইয়া মাওলা
তুমি রহম করো দানে,
সারা ভুবন তাকিয়ে আছে
বিভু তোমার পানে।