কান,চিল তত্ব

October 14, 2020 0 By jarlimited

মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ


টরিক একহাতে হকিস্টিক,আরেক হাতে বাইক চারাতে চালাতে বেরিয়ে গেল।যাবার সময় দ্রুততম বেগে ছুটে গেছে। মা পেছন থেকে চিৎকার করতে করতে পাগলের মতো ডাকছে—-কই যাস বাজান?হোন হোন।হগলে ভাত বাড়ছি। খায়া যা।
আব্বারে কুবাইছে।খবর রাখো?
টরিককে থামানো কঠিন।সারা মহল্লার মানুষ যেখানে টরিকের নামে জ্ঞান হারায়,সেখানে নিজের বাপকে কুপিয়েছে।ঘরে কি বসে থাকলে চলে?
রাস্তায় দেখা হল সাকিবুরের সাথে।সে টরিককে আটকালো।
কৈ– যাস?–সাকিবুরের প্রশ্ন।
রাস্তা ছাড় কৈতাছি!মাথাডা গরম।
কী হৈছে, কইবি তো?
আব্বারে কুবাইছে!
কেডা কৈছে?
আমি হুনছি।
আরে মিছা কতা।
আমি নিজের কানে হুনছি।
আরে নাহ।ভুল শুনছোস।তোর বাপেরে দেইকখা আসলাম রুজিনার চা-স্টলে। চা খায়।
কি কস?কোন সময়?
এইতো দশ মিনিট হৈল।বিশ্বাস না হয়, আমার লগে ল’।

এদিকে টরিকের বাপ বাড়ি এসে বৌকে ডাকতে ডাকতে ঢোকার পর দ্যাখে টরিকের মাকে বারান্দায় শুইয়ে পানি ঢালা হচ্ছে।
রেনু চাচি টরিকের বাপকে দেখে চোখ বড় বড় করে জিগ্যেস করে—তোমার শরীরে হেরা ক্ষতি করে নাই তো?কওচে দেহি।কত বিপদের মইদ্যে—–
কিসের ক্ষতি?
হেরা তোমারে নাকি কুপাইছে?কই দেহি দেহি?
আরে ধুরর।আমারে কুপাইব ক্যামনে? আউব্বরো কুবাইছে। ওইযে নাদেরালী গুরুফের নেতা।
শুক্কুরের চিল্লানীতে মাথায় যেন কেউ বাড়ি মারলো কেউ।
টরিকের বাপ প্রচণ্ড বিরক্ত হয়।
তুই আবার চিল্লাইতাছস ক্যান?কী হৈছে?
খবর খারাপ মামু।বড় ভাইজানে(টরিক) এক্সিডেন করছে।মডর সাইকলডা এক্কেবারে বালুর টেরাকের বিত্তে হান্দায়া গেছে —-!!
টরিকের বাপ সামনে সদ্য চেতনাপ্রাপ্ত বউটার আলুথালু ভেজা চুলের দিকে তাকায়।আবার ছেলেটার কথাও চিন্তা করছে।
আমনে কী চিন্তা করতাছেন মামু?ভাইজান ত শ্যাষ।শীগগির চলেন।পুলিশে, সমপাদিকে(সাংবাদিক)আইসা সব ভইরা গেছে—-

কোথা দেব তুল্য

এ ভালবাসার মুল্য
মায়ের ভালবাসা অমুল্য।।
মায়ের আঁচল তলে

ছায়ার পরশ হলে
নেই ভয় কোন কল্য।।
মা দেয় মধুর বাণী
সন্তান যে চিরঋণী
বেঁধে রাখে প্রাণচাঞ্চল্য।।
যত মায়া মমতা
যত থাকে ব্যথা
মা ডাকে সব চাপল্য।।
হিরা পান্নার ছোঁয়ায়
কিবা আসে যায়
পেলে মায়ের আনুকুল্য।

Date: October 3, 2020
Time: 3:38 pm