“আমি পথশিশু”

October 14, 2020 0 By jarlimited

জিল্লুর রহমান

কত কাল,কত মহাকাল,
না যাই ঘুমে-নিজ বাসভূমে।
কত রাত কাটিয়েছি রাজপথের কঠিনশানে,
কিংবা গেইটের বাহিরে গুলশানে।
পিতৃ-মাতৃহীন হৃদয়ের আর্তনাদ
পৌছায় না কারো দেয়ালের বিপরীতে,
প্রতিধ্বনি হয়ে ফিরে আসে।
দেয়ালের ওপাশে আবদ্ধবাসী নিষ্ঠুর,
একটুকরো রুটি দিতেও অপ্রস্তুত,
ক্ষুধার জ্বালায় ওষ্ঠাগত প্রাণ,
জীবন আমার মানবেতর।
রাতে উপোস,আহার চেয়েছিলাম দুপুরে- ক্ষুধা নিবারণের তরে,
আবদার কত‌! রাজকোষাগার পেয়েছো নাকি-খাবার দেব থালা ভরে।গৃহকর্ত্রীর মনোবাক্য শুনে-
ইচ্ছে হয় চলে যাই ওপারে,
হে প্রভু,আমরা কি এসেছি কেবলই
ধুঁকে ধুঁকে মরতে দুঃখ ভারে।
একদা পথের ধারে ধনির দুলাল এসেছিল কাছে খেলার ছলে,
কর্তা আসিয়া নিয়ে গেলেন,
“ছি! ছোট লোকদের সাথে খেলতে নেই”
এই কথা বলে।
ইচ্ছে হয়েছিলো জিগায় তারে,
‘ছোটলোক আমি’ কোথায় লেখা
আমার গাত্র আবরণে।
তথাপি সেথায় বুঝিলাম,
আমি মানুষ নয়-ছোটলোক।
একদিন ঘুম যাবো মায়ের কোলে শুয়ে
সুনিবিড় কাঁঠাল ছায়ায়,
মা ঘুম পাড়ানির গান শুনাবে,
বুকে রাখবে পরম মায়ায়।
এ সাধ থেকে যাবে আমৃত্যু জীবনভর,
মাকে হারিয়ে বুঝতে শিখেছি দুনিয়াটাই স্বার্থপর।
দুয়ারে দুয়ারে ঘুরেছি অনাহারে,
খেতে দেয়না কেউ ফেলে দেওয়া এটোঁ টুকু,
মানুষ কে চিনিলাম,অবশেষে বুঝিলাম,
আমি মানুষ নয়-পথশিশু।।

Date: October 2, 2020
Time: 4:14 pm