কবির কাব্যকাহিনী

October 3, 2020 0 By jarlimited

-শর্মিলি তেওয়ারি

এই যে আমি এখন ভাবের কবি,
গল্প, কবিতা, প্রবন্ধ-আমিকবিতা একন লিখছি সবই।
মুখেমুখে আওড়ে দু লাইন
আমি এখন স্বভাব কবি।
কেউ বা কোন বিশেষ দিনে আমায় লিখতে বলে যদি,
দশ থেকে একশো লাইনও লিখে ফেলি অনায়াশে
যদিও হোক মিথ্যে সবই।
সংবাদ সম্মলনে আমায় ডাকে,
সাহিত্য সম্মেলনে আমার বক্তৃতা চলে,
আবার কবিতা সম্মলনে গলায় আমার মেডেল জুটে!
হাতে এখন সবসময়ই দু এককানা মোটাসোটা বইও থাকে।
যদিও এখন বই এর পাতা ওল্টাবার দুদন্ড সময় ও নেই বাড়িতে।
সময় কেন থাকবে বলুন–
একন যে আমার নাম খবরে খবরে
আর কাগজে কাগজে জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকে।
আমার এখন বড্ড ব্যস্ত সময় কাটে
সকালে এ পত্রিকায় তো দুপুরে আরেক পত্রিকায় সাক্ষাতকার
আবার বিকেলে এক চ্যানেল তো রাতে আরেক চ্যনেল এ ডাক পড়ে!
সব্বাই একটু বুঝে নিয়ে বলুন তো ভেবে চিন্তে–
লেখালেখি করার সময়টা কবি তবে কখোন পাবে?
পাবলিক ডিমান্ড ভাই রে
জনগণের চাওয়া বলে কথা —
এ কি এ্যাত্তো সস্তায় সবার কপালে জুটে?
এ্যাত্তো সহজ নয় সব,
বড্ড সপনসেটিভ ইস্যু ভাই
এটাও তো বুঝতে হবে!!
দু এক পাতা কেন মশাই,
খাতার পরে খাতা লিখলেও
এসব কী আর কবি- লেখকদের এমনিই মেলে!!
আরে না, না রে ভাই–
এসব কী বলে– ঐ পাবলিক ডিমান্ড,
তারপরে হলো বই মেলায় বই এর সর্বোচ্চ কাটতি,
আবার সাহিত্য সম্মেলনে তালিকার শীর্ষে ছাপা নাম!!
এসবের জন্য আজকাল ভাই ঐ লেখাঝোকা নয়,
সবিই আপনাকে টেকনিক্যালই ম্যানেজ করতে হবে!
ভাবনা-চিন্তা তেমন নয়,
লেখাও – ঐ আর কি,বিশেষ দিনে বিশেষ কিছু,
আর ঐ মেলার জন্য বই একখানা কোনরকম, ব্যাস,
শুধু চ্যানেল, মানে লিন্ক আর কি
ঐ টা ই শুধু ঘষে মেজে ঠিক রাখতে হবে।
ব্যাস,আর কিছুই তেমন চাইনে।
সবজায়গায় ডাকাডাকি আর
তালিকার শীর্ষে নাম — অটোমেটিক হবে।
জাতকবি,স্বভাবকবি,ছন্দকবি–
এসব সবই ফালতু কথা ভাই,
সব ঠিকমতো মেইনটেইন করলে,
আমার নামের আগে ও এসব অটোমেটিক যুক্ত হবে।
আর এসব বিশেষ শব্দ ছাড়া কি ভাই আজকাল
চ্যানেল এর সংবাদে বা খবরের কাগজে
কবির নাম এমনিই দেবে!!
কক্ষণো নয়।
এসব কিছুই দেখে- শুনে,জেনে-বুঝে,
কবি-
লেখা শুরুর আগে থেকেই
লিন্ক–
ঐ লিন্কগুলো সব খুঁজে-পেতে,
যত্ন করে ঘষে-মেজে মেইন্টেইন করেছে।
দিনের পরে দিন কেবল এসব চ্যানেল এ
ছুটে ছুটে আর তেল ঢালতেই সময় গ্যাছে!
তালিকার শীর্ষে থাকা নামের
জনপ্রিয় কবির তবে “মহাকাব্য” লেখার সময়টা
আর কখোন হবে?
তবে, আপনার অতো ভাববেন না।
ইতোমধ্যেই
বেশকিছু দক্ষলোক বাছাই হয়েছে।
তারা সবাইমিলে কিছু একটা লিখেটিখে
পৃষ্ঠার সংখ্যা বাড়িয়ে কবির নামে ছেপে দেবে।
আর না,না না ভাই
এর জন্য ওরাও মোটা অন্কের ডলার পাবে।
বুঝলেন মশাই!!
তারপরে, ঐ লিন্ক সব ঠিক থাকলে
সরকার বদলের আগেই
“মহাকাব্য” টা রিলিজ হতে পারলেই
কবির এক্কেবারে কেল্লাফতে।
জাতীয় কবি যখন আছেন–
তখন ওই পদবী তো আর হবে না,
পাবলিক সেন্টিমেন্ট বলে কথা–
অন্য কোন একটা গালভরা বিশেষণ নামের আগে জুড়ে দিয়ে,
কবির নামটা ঐ কি বলে — জাতীয়করণ করতে হবে।
ব্যাস্, আর চিন্তা কী কবির,
বাকী জীবনের হিল্লে তো তার
এই বেলাতেই কামাই ডলার
তিন পুরুষের নামধাম আর
বাকি সব চোখ বন্ধ করেই হবে।
উহ্! বাব্বা,কী ঝক্কি যে গ্যালো!
কবি ও তাই এবার খাতা-কলম তুলে রেখে
কামাই করা নাম ধাম উপভোগ করবেন আয়েশ করে।।
==================
Kotowali, Chattogram
Date: October 3, 2020
Time: 9:35 pm